Skip to content

লার্নার্স লাইসেন্স (LL): ভারতে অনলাইনে কীভাবে আবেদন করবেন 2024

আপনি যদি ভারতে যেকোনো যানবাহন চালানো শিখতে চান, তাহলে আপনাকে প্রথমে লার্নার লাইসেন্স নিতে হবে।

লার্নার্স লাইসেন্স হল একটি অস্থায়ী এবং সীমাবদ্ধ লাইসেন্স যা আপনাকে একজন সুপারভাইজারের সাথে রাস্তায় গাড়ি চালানোর অনুশীলন করার অনুমতি দেয়।

কেন্দ্রীয় সরকারের সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক মন্ত্রক পরিবহন সারথির অফিসিয়াল ওয়েবসাইট parivahan.gov.in-এর মাধ্যমে অনলাইনে লার্নার লাইসেন্সের জন্য আবেদন করা সহজ করে দিয়েছে।

এই আর্টিকেলটিতে, আপনি ভারতে লার্নার লাইসেন্স পাওয়া সম্পর্কে নিম্নলিখিত বিষয়গুলি জানতে পারবেন,

তাহলে চলুন এই প্রতিটি পয়েন্ট বিস্তারিতভাবে দেখে নেওয়া যাক।

ভারতে লার্নার্স লাইসেন্সের জন্য আবেদন করার যোগ্যতা

ভারতে লার্নার্স লাইসেন্সের জন্য আবেদন করার যোগ্য হতে,

  1. গিয়ারবিহীন দু-চাকার গাড়ির জন্য আপনার বয়স ন্যূনতম ১৬ বছর, গিয়ার বা চার চাকার গাড়ির জন্য ১৮ বছর, এবং পরিবহন যানের জন্য ২০ বছর বয়সী হতে হবে।
  2. আপনার বয়স এবং ঠিকানার একটি বৈধ প্রমাণ থাকতে হবে।

লার্নার্স লাইসেন্সের জন্য আবেদন করার প্রয়োজনীয় নথি

ভারতে লার্নার্স লাইসেন্সের জন্য আপনাকে নিম্নলিখিত নথিগুলির সাথে আবেদন করতে হবে,

  1. বয়স প্রমাণ
  2. ঠিকানা প্রমাণ
  3. মেডিকেল সার্টিফিকেট (যদি প্রযোজ্য হয়)
  4. স্বাক্ষরের স্ক্যান কপি
  5. মোবাইল নম্বর

লার্নার্স লাইসেন্সের জন্য আবেদন করার জন্য প্রয়োজনীয় ফী

লার্নার লাইসেন্স আবেদনের জন্য ফী*

পরিসেবাফী
লার্নার্স লাইসেন্স প্রদান করা (ফর্ম 3) প্রতিটি শ্রেণীর যানবাহনের জন্যRs. 150
লার্নার্স লাইসেন্স পরীক্ষার ফীRs. 50

 *পরিবর্তন সাপেক্ষে

লার্নার লাইসেন্সের জন্য অনলাইনে আবেদন করার পদ্ধতি

ভারতে অনলাইনে লার্নার লাইসেন্সের জন্য আবেদন করতে,

ধাপ ১: Parivahan-এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যান

পরিবহন ওয়েবসাইটে ‘Driving License Related Services’ বিকল্প
  1. প্রথমে, পরিবাহনের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট parivahan.gov.in-এ যান
  2. এরপর, ‘Online Services’ এ ক্লিক করুন এবং ড্রপ ডাউন থেকে ‘Driving License Related Services’ নির্বাচন করুন৷
  3. আপনার রাজ্য নির্বাচন করুন।

(Direct link to select state)

ধাপ ২: “Learner’s Licence” আবেদন ফর্ম ওপেন করুন

  1. ড্যাশবোর্ডে, প্রধান মেনুতে “Learner’s Licence” বিকল্পে ক্লিক করুন।
  2. এরপর, “Application For New Learner Licence” বিকল্পে ক্লিক করুন।
  3. এরপর, ‘Continue’ বোতামে ক্লিক করুন।
  4. “Application for Learner’s Licence (LL)” পেজ আপনার সামনে খুলে যাবে। প্রযোজ্য হিসাবে বিভাগ নির্বাচন করুন।
  5. এর পরে, “Submit” বোতামে ক্লিক করুন।

এখন, আপনার আধার নম্বর বা মোবাইল নম্বর ব্যবহার করে আপনার E-KYC সম্পূর্ণ করতে হবে। পরিবহন ওয়েবসাইট অনুসারে, আপনি যদি আধার নম্বর ব্যবহার করে এই প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ করেন, আপনি আপনার বাড়ি বা যেকোনো পছন্দের জায়গা থেকে LL পরীক্ষা দিতে পারেন, RTO-তে যাওয়ার দরকার নেই। তাই এখানে আমি আধার নম্বর ব্যবহার করে এগিয়ে যাব।

ধাপ ৩: E-KYC সম্পূর্ণ করুন

e-KYC সম্পূর্ণ করুন
  1. এখন, “Submit via Aadhaar Authentication” বিকল্পটি নির্বাচন করুন।
  2. এরপর, “Submit” বোতামে ক্লিক করুন।
  3. এরপর, উপযুক্ত বিকল্প নির্বাচন করে আপনার আধার নম্বর বা ভার্চুয়াল আইডি এন্টার করুন।
  4. এরপর, “Generate OTP” বোতামে ক্লিক করুন।
  5. এরপর, নির্দিষ্ট ক্ষেত্রে প্রাপ্ত OTP এন্টার করুন।
  6. এরপর, সমস্ত চেকবক্সে টিক দিন এবং “Authenticate” বিকল্পে ক্লিক করুন।

আপনি “Submit without Aadhaar Authentication” বিকল্পটি নির্বাচন করে আপনার মোবাইল নম্বর যাচাই করেও এটি সম্পূর্ণ করতে পারেন।

ধাপ ৪: লার্নার্স লাইসেন্সের আবেদনপত্র পূরণ করুন

লার্নার্স লাইসেন্সের আবেদনপত্র জমা করার পেজ
  1. আপনার আধার বিবরণ প্রদর্শিত হবে। “Proceed” বোতামে ক্লিক করুন।
  2. এরপর, ফর্মটিতে, আপনার জন্মের দেশ, যোগ্যতা এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় বিবরণ পূরণ করুন।
  3. এরপর, নির্বাচন করে এবং তীরটিতে ক্লিক করে আপনি যে গাড়ির ক্লাসের জন্য আবেদন করছেন সেটি নির্বাচন করুন।
  4. এরপর, প্রযোজ্য হিসাবে চেকবক্সগুলি পূরণ করুন।
  5. এরপর, ‘Self Declaration (Form 1)’ বোতামে ক্লিক করুন।
  6. এরপর, এটি পূরণ করুন এবং ‘Submit’ বোতামে ক্লিক করুন।
  7. এরপর, প্রযোজ্য হিসাবে declaration চেকবক্সগুলি পূরণ করুন।
  8. এরপর, ক্যাপচা কোড এন্টার করুন এবং ‘Submit’ বোতামে ক্লিক করুন।

আপনার আবেদন সফলভাবে জমা পরে যাবে। এখন আপনাকে নথি আপডেট করতে হবে এবং প্রয়োজনীয় ফী জমা দিতে হবে।

ধাপ ৫: প্রয়োজনীয় নথি আপলোড করুন

LL আবেদনের সময় নথি আপলোড পেজটি
  1. এখন, ‘Next’ বোতামে ক্লিক করুন এবং তারপর ‘Proceed’ বোতামে ক্লিক করুন।
  2. আপনার আবেদন নম্বর এবং জন্ম তারিখ স্বয়ংক্রিয়ভাবে পূরণ করা হবে। ‘Submit’ বোতামে ক্লিক করুন।
  3. এরপর, ‘Ok’ বোতামে ক্লিক করুন।
  4. এরপর, সমস্ত প্রয়োজনীয় নথি আপলোড করুন, যেমন বয়স প্রমাণ, ঠিকানার প্রমাণ এবং চিকিৎসা শংসাপত্র (যদি প্রযোজ্য হয়)।
  5. এরপর, ‘Next’ বোতামে ক্লিক করুন।

ধাপ ৬: ফটো এবং স্বাক্ষর আপলোড করুন

  1. এরপর, ‘Proceed’ বোতামে ক্লিক করুন।
  2. এরপর, আপনার ফটো এবং স্বাক্ষর আপলোড করুন।
  3. এরপর, ‘Save Photo and Signature Image Files’ বোতামে ক্লিক করুন।
  4. এরপর, ‘Next’ বোতামে ক্লিক করুন।

ধাপ ৭: ফী পেমেন্ট করুন

LL আবেদনের সময় ফী পেমেন্ট পেজ
  1. এখন, ‘FEE PAYMENT’ বিকল্পটি নির্বাচন করা হয়েছে নাকি তা নিশ্চিত করুন এবং ‘Proceed’ বোতামে ক্লিক করুন।
  2. আপনার লার্নার্স লাইসেন্সের জন্য আবেদন করার জন্য আপনাকে যে ফী দিতে হবে তার বিবরণ আপনি দেখতে পাবেন।
  3. এরপরে, আপনার পছন্দের পেমেন্ট গেটওয়ে বেছে নিন এবং ক্যাপচা কোড এন্টার করুন।
  4. এরপর, ‘Pay Now’ বোতামে ক্লিক করুন।
  5. এরপর, শর্তাবলী accept করুন এবং ‘Proceed for Payment’ বোতামে ক্লিক করুন।
  6. পেমেন্ট প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ করুন এবং রশিদটির একটি প্রিন্টআউট নিন বা ভবিষ্যতের রেফারেন্সের জন্য এটি সেভ করুন।

ফী পেমেন্ট করার পরে, আপনার আবেদন সফলভাবে জমা পোরে যাবে। আপনি যদি আধারের মাধ্যমে eKYC না করে থাকেন, তাহলে আপনাকে RTO-এ যেতে হতে পারে।

এই পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করে, আপনি সহজেই ভারতে অনলাইনে লার্নার লাইসেন্সের জন্য আবেদন করতে পারেন।

কয়েকদিন পর, আপনি অনলাইনে LL (লার্নার লাইসেন্স) পরীক্ষা দেওয়ার পাসওয়ার্ড পাবেন।  আপনি এটি পাস করার পরে, আপনি পরিবহনের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে আপনার লার্নার লাইসেন্স ডাউনলোড করতে পারেন।

লার্নার লাইসেন্স PDF ডাউনলোড করার ধাপগুলি জানতে ক্লিক করুন

লার্নার লাইসেন্সের বৈধতা

একটি লার্নার্স লাইসেন্স ৬ মাসের জন্য বৈধ থাকে এবং আপনি এটি পাওয়ার ৩০ দিন পরে একটি স্থায়ী ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য আবেদন করতে পারেন।

আপনার লার্নার লাইসেন্সের মেয়াদ শেষ হয়ে গেলে এবং আপনি এখনও ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য আবেদন না করলে, আপনি এটি অনলাইনে রিনিউ করতে পারেন।

আপনার লার্নার্স লাইসেন্স রিনিউ করার পদ্ধতি জানতে ক্লিক করুন


আরো কেদ্র সরকারের প্রকল্প গুলি জানুন